কৃষি বিপণন অধিদপ্তর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭

এ্যাসেম্বল সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্থ স্থাপন, শক্তি ব্যবহারবিহীন বাস্পীভবনজাত শীতক এর কার্যক্রম পরিদর্শন এবং গ্রাম পর্যায়ে স্বল্প খরচে উদ্যানজাতীয় পঁচনশীল কৃষিপণ্যের জন্য নির্মিত সংরক্ষণাগার পরিদর্শন।


প্রকাশন তারিখ : 2017-02-08

এ্যাসেম্বল সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্থ স্থাপন, শক্তি ব্যবহারবিহীন বাস্পীভবনজাত শীতক এর কার্যক্রম পরিদর্শন এবং গ্রাম পর্যায়ে স্বল্প খরচে উদ্যানজাতীয় পঁচনশীল কৃষিপণ্যের জন্য নির্মিত সংরক্ষণাগার পরিদর্শন।

 

কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জনাব মোঃ মাহবুব আহমেদ গত ০৫ ফ্রেব্রুয়ারী/২০১৭ তারিখে সিলেট অঞ্চলের শস্যের নিবিড়তা বৃদ্ধিকরণ প্রকল্পের অধীনে কৃষকের পণ্য সরাসরি বাজারজাতকরণের জন্য নির্মিতব্য হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার পানিউমদা বাজারের এ্যাসেম্বল সেন্টারের ভিত্তিপ্রস্থ স্থাপন করেন। উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নির্বাহী প্রকৌশলী, এলজিইডি, হবিগঞ্জ, ইউপি চেয়ারম্যান, পানিউম্‌দা ইউনিয়ন,  প্রকল্প পরিচালক, আইসিআইএসআরপি, উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার, এলজিইডি, নবীগঞ্জসহ সুবিধাভোগী কৃষক, ব্যবসায়ীসহ আরো অনেকে। তাছাড়া হবিগঞ্জ জেলার পানিউম্‌দা ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে প্রকল্পের গ্রুপসমূহের জন্য আয়োজিত “পোষ্ট হারভেষ্ট টেকনোলজি” কোর্সের উদ্বোধন করেন মহাপরিচালক, কৃষি বিপণন অধিদপ্তর।

গ্রাম পর্যায়ের কৃষক, ব্যবসায়ীদের পঁচনশীল কৃষিপণ্য এর আয়ুষ্কাল (Self Life) বৃদ্ধি করার সুবিধার্তে প্রকল্পের অধীনে নির্মিত শক্তি ব্যবহারবিহীন বাস্পীভবনজাত শীতক এর কার্যক্রম পরিদর্শন করেন মহাপরিচালক কৃষি বিপণন অধিদপ্তর যথাক্রমে ৪ ফেব্রুয়ারী/২০১৭ তারিখে সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীপাশা গ্রামে এবং ৫ ফেব্রুয়ারী/২০১৭ তারিখে হবিগঞ্জ জেলার বানিয়াচং উপজেলার আতুকুড়া গ্রামে।

গ্রাম পর্যায়ে স্বল্প খরচে উদ্যানজাতীয় পঁচনশীল কৃষিপণ্যের জন্য নির্মিত এই সংরক্ষণাগারে কৃষক ভাইদের জন্য এক যুগান্তরকারী সম্ভাবনা সৃষ্টি হয়েছে। কোন প্রকার শক্তি ব্যবহার ব্যতীরেকে শুধুমাত্র ইট, বালু, বাশঁ, খড় ইত্যাদি দিয়ে তৈরী এই সংরক্ষণাগার কৃষকের বাড়ীতে ছায়াযুক্ত স্থানে তৈরী করে প্লাস্টিকের ক্রেটে ফল, সবজি সংরক্ষণ করা যায়। ৫.৫০ ফুট x ৩.৭৫ ফুট আয়তনের একটি সংরক্ষণাগারে সবজি ভেদে প্রায় ৪ থেকে ৫ মন কৃষিপণ্য রাখা যায়। যার আয়ুষ্কাল ১০ থেকে ১৫ দিন। যা স্বাভাবিক তাপমাত্রায় মাত্র ২ থেকে ৩ দিন। নির্মিত সংরক্ষণাগার কৃষকের মাঝে সারা জাগিয়েছে এবং এ ধরণের সংরক্ষণাগার তৈরী করে উৎপাদিত শাক-সবজির ভালমূল্য পেতে সবাই আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

 

ছবিঃ  ১।    ২।    ৩।    ৪।    ৫।     ৬।    ৭।    ৮।


Share with :
Facebook Facebook